শিরোনাম

পাহাড়ে আগত পর্যটকদের নিরাপত্তায় ট্যুরিস্ট পুলিশ

 প্রকাশ: ৩১ মে ২০২১, ০৮:৪৫ অপরাহ্ন   |   ট্যুরিস্ট পুলিশ



প্রাকৃতক সৌন্দর্যের অপরূপ লীলাভুমি পার্বত্যাঞ্চলে ছুটে আসা দেশি-বিদেশী পর্যটকদের নিরাপত্তা ও আনুসাঙ্গিক সুবিধাদি নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নিয়মিত পুলিশের পাশাপাশি ট্যুরিস্ট পুলিশ কাজ করে থাকে। 
ট্যুরিস্ট পুলিশের ডিআইজি মোঃ সোহরাব হোসেন রোববার রাঙামাটিতে এ লক্ষ্যে আয়োজিত এক মত বিনিময় সভায় এই মতামত ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, পার্বত্য এলাকা নানা বিবেচনায় একটি বিশেষ অঞ্চল, একই সাথে এটি পর্যটন সম্ভবনাময় এলাকাও বটে। বিষয়টি সরকারের বিবেচনায় রয়েছে। পর্যটক পুলিশ কাজ করার সময় এখানকার ঐতিহ্য সংষ্কৃতি অক্ষুন্ন রাখাসহ বিভিন্ন পক্ষের সাথে আলোচনাক্রমে সকল পক্ষকে আস্থায় নিয়েই কাজ করবে।

 ট্যুরিস্ট পুলিশ কোনো বিশেষ বাহিনী নয়, বরং পুলিশেরই একটি ইউনিট।  সবুজ-শ্যামল সুন্দরী বাংলার নয়নাভিরাম দৃশ্য অবলোকন করতে প্রতিবছর বাংলাদেশে ছুটে আসে বিশ্বের নানা দেশের প্রকৃতিপ্রেমিরা। শুধু বিদেশী পর্যটকই নয় দেশের অভ্যন্তরীণ পর্যটকরাও দেশের বিভিন্ন স্থানে অবকাশ যাপনসহ ছুটি কাটাতে বেরিয়ে পড়েন সুযোগ পেলেই। দেশি বিদেশী এসব পর্যটক নতুন জায়গায় অচেনা মানুষের কাছে গিয়ে নানা বিড়ম্বনায় পড়েন প্রতিনিয়ত। অনেকে যথাসর্বস্ব খুইয়ে ঘরে ফিরেন ভ্রমণের আকাঙ্খা তুলে রেখে।

এ ধরণের বিড়ম্বনা থেকে পর্যটকদের বাঁচানোসহ বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পে গতি আনার লক্ষ্যে ইতোমধ্যে ‘ট্যুরিস্ট পুলিশ’ নামে পুলিশের বিশেষ একটি ইউনিট গঠন করেছে। নিয়মিত পুলিশেরই একটি অংশ ট্যুরিস্ট পুলিশ ইউনিটে কাজ করবে।

কিন্তু এদের সকল তৎপরতা থাকে পর্যটকদের ঘিরে। শুধু নিরাপত্তাই নয় পর্যটকদের রাত যাপন তথা আবাসন সমস্যাসহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করার লক্ষ্যেও এই পুলিশ কাজ করবে।